তৌকির আজাদ-এর ব্লগ

প্রিন্ট প্রকাশনা

শিক্ষা জাতির মেরুদণ্ড, হরতাল না ! ! এইচ এস সি ও সমমানের পরীক্ষা-২০১৩ এর রেজাল্ট প্রসঙ্গে ! !

লিখেছেন: তৌকির আজাদ

শিক্ষা জাতির মেরুদণ্ড, হরতাল না ! ! এইচ এস সি ও সমমানের পরীক্ষা-২০১৩ এর রেজাল্ট প্রসঙ্গে ! !

রেজাল্ট খারাপ হয়েছে নাকি হয় নাই, সেটা জানি না, হয়তো ভাল হয়তো খারাপ। যদি খারাপ হয়ে থাকে তবে আমি কোন একটি রাজনৈতিক দলের দোষ দিব না, কেননা দোষটা আমাদের রাজনৈতিক মূল্যবোধের রাজনৈতিক ট্র্যাডিশনের, যেটা কিনা আবার আমাদের গণতান্ত্রিক অধিকারও বটে।

দুঃখ একটাই, শিক্ষা জীবনে আমাদের কোন গণতান্ত্রিক অধিকার মনে হয় নাই, তা না হলে এমন দুর্দিন দেখা লাগতো না… । এত হরতাল ঈদ এর মতন পালন করা লাগত না, শিক্ষা জীবনে কোন বাঁধার সম্মুখীন হয়া লাগত না। অর্ধেক রাজনীতিবিদ গন পরাশুনা করেন নাই প্রজন্মকে গালি দিতে সময় লাগে না, বাকি অর্ধেক শিক্ষিত গোঁয়ার ! ! বেক্তির চাইতে দল বড়, দলের চাইতে দেশ বড়, শিখার জন্য মনে হয় না পড়েছেন !

এই বছর শিক্ষার হার ৭৪% যা গতবারের চাইলে ৪% কম, আগে জানতাম সরকারের শেষ বছরে শিক্ষার হার বাড়ে, এখন বাস্তব কিছুটা ভিন্ন মনে হইতেসে। তবুও যাই বলি না কেন, হরতাল আছে, হরতাল থাকবে – গণতান্ত্রিক অধিকার বলে কথা।

কেন ভাই, দেশের ভালর জন্য কিছু ক্ষেত্র হরতালের আওতামুক্ত করলে কি খুব একটা ক্ষতি হয়ে যাবে? নাকি আপনারা চান না, ছেলে মেয়েরা ভাল করুক। সেটা কেমনে চাইবেন ? ভাল করলে আপনাদের লাভ টা ত কম, বরং ক্ষতি বেশি, তাই না ? এমনিতেই শিক্ষা বেবস্থাকে জন্মলগ্ন থেকে ৩ টা ভাগ করে রেখেছেন, ভাগ করে রেখেছেন চিন্তা চেতনা কে, বাংলা মাধ্যম এর ছেলে মেয়েরা ইংলিশ মাধ্যম এর ছেলে-মেয়েদের কি না কি ভাবে, আর ইংলিশ মাধ্যম এর যারা আছেন তারা ভাবেন আর এক ভাবে। আর উভয়ই মাদ্রাসা শিক্ষা বেবস্থাকে, আবার দেখে একটু অন্য ভাবে। কেন ? দোষ কারো না ! দোষ শিক্ষাবেবস্থার যার জন্য দায়ী ওই নীতিনির্ধারকগনরা ! শুরু থেকেই সব শুরু করে দিয়েছেন। দেশটার ১২ টা বাজানোর সব পথ ঠিক ঠিক বানিয়েছেন, খালি বর্ষায় নতুন রাস্তা প্রতিবছরই কেন জানি বানাইতে হয় !

এর চাইতে দুঃখের বিষয় হল, এই রেজাল্ট এর বেপারটাও রাজনীতির হাত থেকে রেহাই পেল না। এইটা নিয়েও রাজনীতি করতে হয় ! ! !

পারলে, শিক্ষাবেবস্থা ঠিক করেন, পাব্লিক বিশ্ববিদ্যালয় গুলোর সিট বাড়ান, নতুন বিশ্ববিদ্যালয় তৈরি করেন।

শোনেন, শিক্ষা জাতির মেরুদণ্ড, হরতাল না ! !

জয় বাংলা।

এ লেখার লিংক: http://projonmoblog.com/towkir-azad-shumit/20250.html



মন্তব্য করুন