Shammo Khan-এর ব্লগ

প্রিন্ট প্রকাশনা

নিরপেক্ষতা নয় সকল দেশপ্রেমিক মানুষের ঐক্য চাই

লিখেছেন: Shammo Khan

কোন দেশে যুদ্ধাবস্থায় বা জাতীয় সংকট কালে কোনো দেশের দেশপ্রেমিক মানুষই দলমতের ভিত্তিতে বিভক্ত থাকে না। তারা সাময়িক কালের জন্য জন্য রাজনৈতিক মতভেদ ভুলে এক হয়ে যায়। দ্বিতীয় মহাযুদ্ধের সময় ব্রিটেনে ফ্যাসিবাদের বিরুদ্ধে টোরি, লেবার, লিবারেল, এমনকি কমিউনিস্ট দল পর্যন্ত এক হয়ে গিয়েছিল। তারা এই দাবি তোলেনি যে শান্তি প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে ফ্যাসিবাদের সঙ্গে সংলাপে বসতে হবে। হাউস অব কমন্সে দাঁড়িয়ে চার্চিল বলেছিলেন, ‘এই যুদ্ধে ফ্যাসিবাদের চূড়ান্ত পরাজয় না হওয়া পর্যন্ত আমরা ক্ষান্ত হব না। আমরা ধ্বংস হতে পারি, কিন্তু কোনো আপস নয়।বাংলাদেশেও আজ ধর্মীয় ও মৌলবাদী ফ্যাসিবাদের হিংস্র অভ্যুত্থানের মোকাবিলায় দেশপ্রেমিক সব দলমতের মানুষের এক হওয়া প্রয়োজন।এই সন্ত্রাস আর মানুষ মারা রাজনৈতিক আন্দোলনের মুখোশে ঢাকা বর্বর গণহত্যা। উদ্দেশ্য রাষ্ট্রের চরিত্র ও অস্তিত্ব বদল।রাজনৈতিক ক্ষমতার হাতবদল নয়। তার স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব খর্ব করে ফেলা।দেশের সুবিধাভোগী এলিট ক্লাস (সুশীল সমাজের এক অংশ) নিজেদের কায়েমি স্বার্থ রক্ষার তাগিদে সংলাপ সংলাপ বলে চিৎকার করে, আক্রমণকারী ও আক্রান্তকে একই দাঁড়িপাল্লায় তুলে তাদের মধ্যে সংলাপের মাধ্যমে সমঝোতার দাবি তুলছে, তাদের উদ্দেশ্য ও দেশপ্রেম সম্পর্কে অবশ্যই প্রশ্ন তোলা যায়।তারা অবশ্যই জানে, বর্তমানে বাংলাদেশে যা চলছে তা রাজনৈতিক সংঘাত নয়; এটা দুই বিপরীতমুখী শক্তির মধ্যে অস্তিত্ব রক্ষার সংঘাত। প্রায় চার দশক থেকে দুই পক্ষের জয়-পরাজয়ের মধ্য দিয়ে সংঘাতটি শেষ পর্যায়ে এসে দাঁড়িয়েছে। এই সংঘাতে নিরপেক্ষ সাজার কোনো অবকাশ নেই। যারা নিরপেক্ষ সেজে শান্তি ও সংলাপের বাণী কপচাচ্ছে, তাদের অধিকাংশই ভণ্ড বা দালাল।

এ লেখার লিংক: http://projonmoblog.com/shammo-khan/32519.html



মন্তব্য করুন