সাদাবৃত্ত নীলবিন্দু সাইফুল-এর ব্লগ

প্রিন্ট প্রকাশনা

আজ আমাদের দেশপ্রেম কোথায়?

লিখেছেন: সাদাবৃত্ত নীলবিন্দু সাইফুল

প্রথম অন্ধকার পত্রিকায় দেখতে পেলাম আমাদের দেশে নাকি কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরকে অবমাননা করা হচ্ছে।তার কবি্তার সঠিক মান আমরা দিতে পারছি না।প্রথম অন্ধকার পত্রিকার এই সংবাদের প্রতিবাদে আমার কিছু তথ্য আছে।
যে সন্তান নিজের মাকে যতটুকু ভালবাসে তার চেয়ে যদি অন্যের মাকে বেশি ভা্লবাসে সে কি প্রকৃত সন্তান হওয়ার যোগ্য।না, কখনোই না।আমরা সেই সন্তান,যারা নিজের মাকে বাদ দিয়ে অন্যের মাকে নিয়ে নাচানাচি করি।আমাদের জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম,রবীন্দ্রনাথ নয়।রবীন্দ্রনাথ পশ্চিমবংগের জাতীয় কবি।কিন্তু আমাদের দেশের জাতীয় সংগীত কার লেখা?রবীঠা্কুরের,হিসেব অনুযায়ী জাতীয় সংগীত টি থাকা উচিত কাজী নজরুল ইসলামের।তারপরেও আ্মরা তাকে অবমাননা করছি।তাহলে কি আমরা যোগ্য সন্তান!

১৯০৩ সাল।কলকারখানা,শিক্ষা,উন্নয়ন সবদিক থেকেই আমাদের এই প্রদেশ ছিল খুবই পশ্চাতগামী।কলকাতার মানুষরা লেখাপড়া শিখে বড় বড় পদে কর্মকর্তার দায়িত্ব পান আর আমাদের মত মানুষদের কাজের বুয়ার মত ব্যাবহার করতেন।এটা দেখে বৃটিশরা আমাদের এই খন্ডকে উন্নত করার জন্য বঙ্গকে ভেঙ্গে পূর্ব বঙ্গ আর পশিম বঙ্গ করতে চাইলেন।লেখাপড়ার উন্নয়নের জন্য তারা ঢাকায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন করতে চাইলেন।কিন্তু এটা পশিমবঙ্গের কিছু বুদ্ধিজীবিরা মানতে পারলেন না।কারন আমাদের প্রদেশ উন্নত হলে তারা আর আমাদের কাজের লোকের মত ব্যবহার করতে পারবেননা।এই বুদ্ধিজীবিদের মধ্যে অন্যতম হলেন কবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।উনারা বঙ্গ ভঙ্গ রদ আন্দোলন গড়ে তু্ললেন। লর্ড কার্লের কাছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় যেন প্রতিষ্ঠা না হয় এর জন্য চিঠিও দিয়েছিলেন এই রবী্ন্দ্রনাথ।আর এই বঙ্গ ভঙ্গ রোধের জন্য যে গানটা তিনি লিখেছিলেন সেটি হল…………………………
আমার সোনার বাংলা
আমি তোমার ভালবাসি
………………।।
………………।।
আমরা স্বাধীনচেতা জাতি।একদিন স্বাধীন ঠিকই হলাম,৩০ লক্ষ শহীদের রক্তের বিনিময়ে।কিন্তু স্বাধীন হলে কি হবে,আমাদের বুদ্ধিটা এখনও কাজের বুয়ার মতই আছে।তা নইলে যে সঙ্গীত টি রচিত হয়েছিল আমাদের পরাধীন রাখার জন্যে আর আমরা কিনা সেই সংগীতকেই আমাদের জাতীয় সঙ্গীত বানিয়েছি! বড়ই অদ্ভুত জাতি আমরা!!
নিজের মাকে কষ্ট দিয়ে অন্যের মায়ের সুখ রচনা করছি।কারো মনে আঘাত লাগলে ক্ষমা করবেন।

এ লেখার লিংক: http://projonmoblog.com/saifulchemist/28776.html



মন্তব্য করুন