কিন্তু-এর ব্লগ

প্রিন্ট প্রকাশনা

মুক্তি যুদ্ধের ২য় পর্ব … মানে ?

লিখেছেন: কিন্তু

হঠাৎ কি যেন হলো, ক্ষমতার লোভে রাজনৈতিক দল গুলো এক অনৈতিক রাজনৈতিক কলহে দেশটাকে এক নরকের পথে ঠেলে দিচ্ছে| আজ ২৬শে নভেম্বর ২০১৩, সংবাদ পত্রের শিরোনাম দেখলেই যেন গা শিউরে উঠে, সবচাইতে বেশী ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে আমাদের যোগাযোগ ব্যবস্থা, আমাদের রেল বিভাগ, গণতন্ত্রকে প্রতিষ্ঠিত করতে অবরোধের নামে অপরাধ সংগঠিত করার এই প্রক্রিয়া চালু করতে বি এন পি ও তার অঙ্গ সংগঠন গুলো মরিয়া হয়ে রাজপথে নেমে এসেছে | অবরোধের কারণে যাত্রীরা চরম দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন।একতরফা নির্বাচনের লক্ষ্যে তফসিল ঘোষণার প্রতিবাদে মঙ্গলবার সকাল ৬টা থেকে এই অবরোধ শুরু হয়। হরতাল গণতন্ত্রের একটি হাতিয়ার, এই গণতন্রের হাতিয়ারকে সহিংসতার রূপ দেয়াটা অবশ্যই দণ্ডনীয় অপরাধ | সবচাইতে আশ্চর্যের বিষয় হচ্ছে, এই অপরাধের সাথে বিকল্প-ধারার মহাসচিব মেজর (অব.) মান্নান এবং যুগ্ম-মহাসচিব মাহী বি চৌধুরীরও যোগ দিচ্ছেন| বি এন পি জামাতের সহযোগিতায় আজ এই বাংলাদেশকে একটি তালেবান রাষ্ট্রে রূপ দেবার জন্যে এক জঘন্য কুকর্ম চালিয়ে যাচ্ছে |

হায়রে বোকা বাঙালী, আমারা আজো বুঝতে পারছি না মুক্তিযুদ্ধ এখনো শেষ হয়নি, এখন চলছে মুক্তিযুদ্ধের সেকেন্ড পার্ট মানে ২য় পর্ব, এই যুদ্ধে বাঙালী পিছিয়ে পরবে না, এখন শুধু সময়ের অপেক্ষা মাত্র |

আমাকে যদি কেউ প্রশ্ন করে ১৯৭১ সালের ১৬ই ডিসেম্বরের পর বাঙ্গালীর সবচাইতে বড় প্রাপ্তি কি? আমি বলবো, সাহাবাগের গণজাগরণ মঞ্চ | আজ না হোক, বাঙালী একদিন বুঝতে পারবে যে বয়সে গণজাগরণের এই যুবকরা প্রেমের মোহে ডুবে থাকার কথা, জীবনটাকে সুন্দর করে সাজাবার কথা, ঠিক সেই সময়টাতেই বাংলার এই যুবকরা স্বাধীনতার চেতনাকে সমুন্নত রাখতে রাজপথে নেমে আসে, আর এখান থেকেই শুরু হবে ধর্মান্ধ রাজনৈতিক অপশক্তির বিরুদ্ধে মুক্তি যুদ্ধের ২য় পর্ব | কেউ কি ভুলেও চিন্তা করে দেখছেন না যে সর্বচ্চো আদালতে আপিলের আইনি পরিবর্তন, জামাতের নিবন্ধন বাতিল, কাদের মোল্লার রায়, নতুন প্রজন্মের অন্তরের দাবীকে বাংলাদেশের প্রতিটি স্কুল কলেজে পৌঁছে দেয়া, এর সব গুলোই গণজাগরণের কত বড় অর্জন|

কত কিছুইতো শুনলাম, গণজাগরণ করে কেউ কেউ কোটিপতি, প্রবাসের যাবার ফ্রি টিকেট, বড় বড় গাড়ী বাড়ি, কই আজ পর্যন্ত তো কেউ কোন কিছুই প্রমাণ করতে পারলো না ? সত্যি খুব হাসি পায় |

যারাই আজ সুশীল সমাজ সেজে গণজাগরণের সমালোচনা করতে করতে উন্মাদের মত আচরণ করছেন, একদিন তারাই বুঝতে পারবেন, গণজাগরণের এই তরুণ সমাজ মুখপাত্র ইমরান সরকার ও তার সহযোগীরা যৌবনের সব আনন্দকে উপেক্ষা করে এখনো রাজপথেই জেগে আছে, আমি একজন সাধারণ বাঙালী হয়ে এই তরুণদের সম্মুখে  নতজানু হয়ে বলতে চাই আমরা তোমাদের পাশেই আছি| জয় বাংলা, জয় বাংলার মেহনতি মানুষের, জয় বঙ্গবন্ধু |

—কিন্তু—

এ লেখার লিংক: http://projonmoblog.com/kintu/25349.html

 1 টি মন্তব্য

  1. খাজা বাবা

মন্তব্য করুন