আতিকুর রহমান আতিক-এর ব্লগ

প্রিন্ট প্রকাশনা

অচেনা প্রেমিক

লিখেছেন: আতিকুর রহমান আতিক

 সন্ধ্যাবেলা মাগরিবের নামায আদায় করে বারান্দায় গিয়ে দাঁড়াল সোমা। রংপুর শহর, বাংলাদেশের অন্যতম বসবাসযোগ্য শহরগুলোর একটি। হঠাৎ মোবাইলটা বেজে ওঠে সোমার। অসময়ে অপরিচিত নম্বর থেকে কল এসেছে। রিসিভ করে সোমা।

-হ্যালো আসসালামুআলাইকুম।

-ওয়ালাইকুম সালাম।

-কে বলছেন?

-আপনি কি সোমা বলছেন?

-জ্বি বলছি। আপনি কে?

-আমি আতিক বলছি।

-আতিক। কোন আতিক?

-আপনার কোন এক বন্ধু।

-দেখেন আতিক সাহেব, এই নামে আমার কোন বন্ধু নেই। পরিচিত কোন আত্মীয় নেই। সুতরাং দয়া করে ফোনটা রাখেন। আমাকে বিরক্ত করবেন না।

লাইনটা কেটে দেয় সোমা। পরদিন আবার সেই ছেলেটির কল। কিন্তু অত সহজে গলে যাবার মতো মেয়ে সোমা নয়। এদিকে আতিকও হাল ছেড়ে দেওয়ার মতো ছেলে নয়। বন্ধু আনোয়ারের মুখে শুনেছে রংপুর শহরের অনেক অনেক ছেলে সোমাকে পছন্দ করে। আনোয়ার নিজেও ওই মেয়েকে পটানোর চেষ্টা করেছে। কিন্তু ব্যর্থ। তাই আতিক আনোয়ারের সাথে বাজি ধরেই সোমার নম্বরটা নিয়েছে। এভাবে এক মাস কেটে যায়। সোমা একদিনও ভালোভাবে কথা বলে না। অবশেষে আতিক সোমাকে কথা দেয় সে ওকে আর কল দিয়ে বিরক্ত করবে না। কিন্তু বিশেষ দিনগুলোতে সে সোমাকে মেসেজ দিবে। এরপর থেকে প্রতিদিনই আতিকের বিশেষ দিন হয়ে যায়। হাতধোয়া দিবস, পানি দিবস……। প্রতিদিন একটা করে মেসেজ পাঠাতেই হবে আতিকের। এভাবেই চলছিল দিন। একদিন সোমার খালাতো বোন নিপা আসে ওদের বাসায়। নিপারা নীলফামারীতে থাকে। সোমা নিপাকে সবকিছু জানিয়ে সমাধানের পথ জানতে চাইল। নিপার বুদ্ধিতে সোমা আতিককে ওর মোবাইলে ৫০০ টাকা লোড দিতে বলতে বললো। কারণ নিপা বলেছে, আতিক যদি সত্যিই ভালোবাসে তাহলে ও টাকাটা তোর মোবাইলে পাঠাবে। আর যদি না পাঠায় তাহলে কাহিনী শেষ। মিনিট দশেকের মধ্যেই সোমার মোবাইল নম্বরে ৫০০ টাকা পাঠায় আতিক। সেদিন প্রথম সোমা আতিকের সাথে ভালোভাবে কথা বলে।

-আপনি প্রথম পরীক্ষায় পাশ করেছেন। তবে এখানেই পরীক্ষা শেষ নয়। আরো অনেক পরীক্ষা দিতে হবে আপনাকে। তা কি করেন আপনি?

-পড়াশুনা।

-কোথায়?

-জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ববিদ্যালয়ে অনার্স প্রথম বর্ষ।

-কোন সাবজেক্ট?

-ইংরেজি।……….

এ লেখার লিংক: http://projonmoblog.com/ar-atique/25074.html

 4 টি মন্তব্য

(ফোনেটিক বাংলায়) মন্তব্য করুন

  1. আজাদ মাষ্টার

     গল্প তো না পড়তেই সমাপ্ত হয়ে গেলো জি বাংলার সিরিয়ালের মতোই কি টেনে লম্বা করা হবে ? 

  2. আতিকুর রহমান আতিক

    জ্বি, কথাটা সত্যি। গল্পটা পড়ার জন্য ধন্যবাদ স্যার। 

  3. সাজেদুর

    গল্পের শেষটা কেই?? :-o. শুরু না হতেই শেষ..:-( 

  4. আতিকুর রহমান আতিক

    কিছু কিছু কাহিনী আছে যা শুরু না হতেই শেষ হয়ে যায়। গল্পটার বাকী পর্বগুলো প্রকাশিত হবে।

মন্তব্য করুন