anutri-এর ব্লগ

প্রিন্ট প্রকাশনা

আমার দিনলিপি -২

লিখেছেন: anutri

দেরি করে ঘুম থেকে উঠেছি । বেলকুনিতে দাড়িয়ে দেখি শরতের মিষ্টি রোদ , ততক্ষণে অনেকটাই কর্কশ হয়ে পড়েছে । আমার দিকে একরাশ বিরক্তি নিয়ে যেন বললো, এতক্ষনে ঘুম ভাঙল ?আমার বাসার বেলকুনিটা চড়ুই পাখির দখলে । আগে আমায় দেখলে ভয় পেয়ে উড়ে যেত। আজকাল আর সমীহ করে না । ভাবখানা এরকম বেলকুনিটা বুঝি তাদের । আমিও তাদের সাথে ঝামেলায় জড়াইনা । কি দরকার? সহবাসে আমার আপত্তি নেই । আমার বাসার একটু দূরে একটা খোলা জায়গায় , একটা পরিবার বাস করে । তারা পশুপাখি প্রেমিক দেখলেই বোঝা যায়।তাদের উঠনের ঈশান কোনে ,এক পা ওয়ালা একটা রাজহাঁস বাধা থাকে । রাজহাঁসটির আর্ত চিৎকারে কান পাতা যায় না । রাজহাঁসটির সঙ্গি সাথিরা চারিদিকে ঘুরে বেড়ায় । রাজহাঁসটি তার একপায়ের অক্ষমতায় মুক্তির দীর্ঘ নিঃশ্বাস ফেলে , কেউ টের পায় কিনা জানি না । আমি পাই।

আমার বাসা থেকে ১০০ গজ দূরে , শ্যাওলা ধরা একটা পাঁচতলা বাড়ি । বাড়ীটিতে একটা মেয়ে থাকে । বয়স কত হবে ১৫-১৬ । প্রথম যেদিন দেখেছিলাম , মনের অজান্তেই বলেছিলাম ,বাহ চমৎকার তো ! প্রতিদিনই মেয়ে টা একি জায়গায় বসে থাকে ঘন্টার পর ঘন্টা । সপ্ন হীন তার চোখ ,অভিবাক্তি হীন একটা চেহারা ,এলোমেলো তার চাহুনি । আমি প্রতিদিন তাকে দেখি । প্রতিদিনই সিক্ত হই এক অজানা কষ্টে ।

আমার বাসার থেকে একটি বাড়ি ,হাত বাড়ালেই ছোয়া যায় । তাদের আবার বাগান করার শখ । রাজ্যের ফুলের গাছ আছে তাদের । সেই বাগানে একটা নাম না জানা ফুল ফুঠেছে , একটু ঝাঁঝালো তার গন্ধ । আমার সকালের প্রথম চায়ে আমি তার উপস্থিতি টের পাই । যেমনটা এখন পাচ্ছি । নাম না জানা এই ফুলটির আবেশ নিয়ে আমার প্রতিটি দিন শুরু হয় ।

এরপরের গল্প , আমি শুধুই মোহিত হতে থাকি । ফুলের গন্ধে সৌন্দর্যে । আমি ভুলে যেতে থাকি চড়ুই পাখির কলকলানি ,এক পা ওয়ালা রাজহাঁসের স্বপ্ন কিংবা প্রতিবন্ধি মেয়েটার গল্প । ভুলে যেতে থাকি আমার চারদিকের সব নীল কষ্ট । আমি ভেসে যাই আনন্দের আবাহনে । এভাবেই আমি প্রতিদিন হারিয়ে ফেলি আমার আমিকে ! আমার নিজস্ব সত্তা কে !!!

এ লেখার লিংক: http://projonmoblog.com/anutri/23619.html



মন্তব্য করুন